মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগ, লাগবে না এজেন্সির সহায়তা

বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য পছন্দের একটি দেশ মালয়েশিয়া। প্রতিবছর হাজার হাজার বাংলাদেশি কর্মের জন্য মালয়েশিয়ায় গিয়ে থাকেন। অনেকেই সরকারিভাবে যান, আবার অনেকেই বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে। আর এজেন্সির মাধ্যমে গিয়ে অনেকেই প্রতারণার শিকার হয়ে সর্বস্ব খোয়ান। আবার অনেকেই পড়েন মানব পাচারকারীর হাতে।

এবার মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগে সহায়তাকারী সংস্থাগুলির পরিষেবা তথা এজেন্সি সহায়তা লাগবে না।

আজ শুক্রবার (৮ মার্চ) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি সাইফুদ্দিন নাসুশন ইসমাইল।

এ বিষয়ে দাতুক সেরি সাইফুদ্দিন নাসুশন ইসমাইল বলেন, ইভিসা আবেদনগুলি এখন ইমিগ্রেশন বিভাগের মাইভিসা পোর্টালের মাধ্যমে সরাসরি আবেদন করা যাবে।

তিনি জানান, বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়োগের বিষয়ে সরকার নিয়োগকর্তাদের সক্রিয় আইডি এবং ব্যবহারকারীর ম্যানুয়াল প্রদান করেছে।

এসময় তিনি আরও বলেন, ভিসা অনুমোদনের পর অভিবাসী কর্মীদের মালয়েশিয়ায় আনতে নিয়োগকর্তাদের চলতি বছরের ৩১ মে পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছে সরকার।

সাইফুদ্দিন বলেন, দেশের জনগণের সুবিধা বিবেচনায় মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ ও  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এসব সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিদেশিকর্মী নিয়োগে এজেন্টের হস্তক্ষেপ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম।

সে সময় তিনি বলেছিলেন, মালয়েশিয়ায় কর্মী হিসেবে আসতে নেপালের শ্রমিকদের খরচ মাত্র ৩ হাজার ৭০০ রিঙ্গিত। কিন্তু বাংলাদেশ এবং ইন্দোনেশিয়ার শ্রমিকদের বেলায় প্রত্যেককে খরচ করতে হয় ২০ হাজার থেকে ২৫ হাজার রিঙ্গিত।  

এই খরচকে ‘আধুনিক দাসত্বের’ সমতুল্য বলে আখ্যা দিয়েছিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম।

আরও পড়ুনঃ  দুই বছরের কারাদণ্ডের কারনে ২৮ বছর ধরে পালিয়ে ছিলেন মঞ্জু

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

দয়া করে আপনার Ad Blocker টি বন্ধ করুন

অ্যাডের টাকা দিয়েই আমাদের সাইট পরিচালনা করা হয় ‌‌। আপনি দয়া করে আপনার Ad Blocker টি বন্ধ করে আমাদেরকে সাহায্য করুন ‌।