মা পালিয়ে গেছেন প্রেমিকের সঙ্গে, থামছেনা নবজাতক শিশুর কান্না

নবজাতককে হাসপাতালে ফেলে প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গেছেন নিঝুম (২০) নামে এক তরুণী। যশোর জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। গত ৫ অক্টোবর এ ঘটনা ঘটলেও আজ বহস্পতিবার বিষয়টি জানাজনি হয়।হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ৪ অক্টোবর রাতে ইব্রাহিমের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী নিঝুম (২০) হাসপাতালে ভর্তি হন (হাসপাতালে ভর্তি রেজি. নাম্বার ৯৪১৬১৪/০৪)। পরদিন দুপুর ১টার সময় অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার একটি ছেলেশিশু জন্ম হয়। এর ঘণ্টাখানেক পর থেকে শিশুটিকে হাসপাতালে রেখে নিখোঁজ হন মা। শিশুটি দুই দিন হাসপাতালের সেবিকাদের তত্ত্বাবধানে ছিল। এ অবস্থায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার স্বজনদের সন্ধান করতে থাকে। একপর্যায়ে পুলিশের সহযোগিতায় শিশুটির নানা-নানির সন্ধান পাওয়া যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ বুধবার (৬ অক্টোবর) শিশুটিকে নানা-নানির হাতে তুলে দেয়।এ ব্যাপারে জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহম্মেদ সাংবাদিকদের বলেন, শিশুটিকে পুলিশের মধ্যস্থতায় তার নানা শাহ আলম, নানি আসমা খাতুন এবং বাবাইব্রাহিমের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।শিশুটির নানা শাহ আলম বলেন, ‘গত বছরের মার্চে মেয়েকে মাগুরার শ্রীপুরের ইব্রাহিমের সঙ্গে বিয়ে দিই। বিয়ের পর নিঝুম স্বামী ইব্রাহিমের সঙ্গে ঢাকায় থাকত। কিছুদিন আগে নিঝুম অন্তঃসত্ত্বা হলে মাগুরায় আসে। কিন্তু মেয়ের সঙ্গে কিভাবে যেন পরিচয় হয় ভোলা জেলা সদরের খয়েরতলা এলাকার শাহিন নামের এক যুবকের। এই শাহিন ফুসলিয়ে কৌশলে নিঝুমকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। নিঝুমের সন্তান জন্ম নেওয়ার পর তাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ ও আমরা এখন শাহিন ও নিঝুমকে খুঁজছি।’তিনি আরো বলেন, শিশুটি এখনো সুস্থ আছে। তবে তার কান্না থামছে না।

আরও পড়ুনঃ  মেয়ের কবর দেখার শেষ ইচ্ছা পূরণ হলো না ইলিয়াস শেখের!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

দয়া করে আপনার Ad Blocker টি বন্ধ করুন

অ্যাডের টাকা দিয়েই আমাদের সাইট পরিচালনা করা হয় ‌‌। আপনি দয়া করে আপনার Ad Blocker টি বন্ধ করে আমাদেরকে সাহায্য করুন ‌।